ল্যাপটপের ব্যাটারি কে দীর্ঘজীবন দিতে চান? নিয়ে নিন ৬ টি টিপস

ল্যাপটপে গুরুত্বপূর্ণ কাজ করছেন অথচ দেখলেন এমন সময়ে  ব্যাটারির চার্জ শেষ হয়ে গেছে । অধিকাংশ ল্যাপটপে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ব্যাটারির আয়ু কমে যাবার সমস্যা দেখা দেয় । খুব বেশি কাঠখড় না পুড়িয়েও ছোট কয়েকটি  পরামর্শ মেনে চললে ল্যাপটপের ব্যাটারিকে দিতে পারেন দীর্ঘায়ু ।  ব্যাটারির আয়ু বাড়ানোর কিছু সহজ উপায় রয়েছে । ল্যাপটপ ব্যবহারকারীদের উচিত এ বিষয়গুলোকে অভ্যাসে পরিণত করা । তা হলে অনাকাঙ্খিত বিড়ম্বনায় আর পড়তে হবে না ।



(১)ডিসপ্লে: ল্যাপটপের ডিসপ্লের ব্রাইটনেস কমিয়ে রাখুন । ব্রাইটনেস কমিয়ে রাখলে অনেক সময় ধরে চার্জ থাকে । স্ক্রিনের উজ্জ্বলতা বা ব্রাইটনেস চোখের জন্য সহনীয় মাত্রায় যতোটা সম্ভব কমিয়ে রেখে ব্যবহার করা যায়, ততোটাই ভালো । আর কিবোর্ডে ব্যাকলাইট থাকলে ,  সেটিও সেটিংস থেকে বন্ধ করে দিন । এতে ব্যাটারির আয়ু বাড়বে । 

(২)এক্সটার্নাল ডিভাইস: কাজের ক্ষেত্রে অনেক সময় আমরা এক্সটার্নাল ডিভাইস ব্যবহার করি । ল্যাপটপের ইউএসবি পোর্টে যে ধরনের এক্সটার্নাল ডিভাইস (যেমনঃপেনড্রাইভ) চালু থাকুক না কেন , কাজ শেষ হয়ে গেলে, সেটি ইউএসবি পোর্ট থেকে খুলে ফেলতে হবে তা না হলে , আপনার ল্যাপটপ থেকে সেটি অনবরত পাওয়ার টানতে থাকবে । 

(৩)অতিরিক্ত গরম হওয়া: আমরা ল্যাপটপ দিয়ে দীর্ঘক্ষণ কাজ করে থাকি। ফলে ল্যাপটপ প্রচুর গরম হয়ে যায় । ল্যাপটপ বেশি গরম হয়ে গেলে , ল্যাপটপের ভেতরের ফ্যানগুলো আরও দ্রুত ঘুরতে শুরু করে । যা স্বাভাবিকভাবেই বেশি ব্যাটারি খরচ করে। তাই একটি ল্যাপটপ কুলার কিনে ফেলুন । এতে ল্যাপটপটি অতিরিক্ত গরম হবে না ।



(৪)হাইবারনেশনে রাখুন: অনেক সময়ই প্রয়োজনীয় কাজে ল্যাপটপের কাজ ফেলে বাহিরে যেতে হয়। তখন সাধারনত আমরা  মোড অফ করে রাখি । ল্যাপটপ স্ট্যান্ডবাই মোডে না রেখে বরং হাইবারনেশনে রাখুন । এর ফলে কম্পিউটারটি বন্ধ হবে ও  চার্জ অনেক বেশি সময় থাকবে। হাইবারনেশনে ল্যাপটপ বন্ধ হলেও , শেষ যেভাবে কাজগুলো আপনি সংরক্ষণ করছিলেন বা যে উইন্ডোগুলো খুলে রেখেছিলেন , ল্যাপটপটি চালুর পর ঠিক সে অবস্থাতেই সেগুলো পাবেন।

(৫)উইন্ডোজের পাওয়ার প্ল্যান: ল্যাপটপে উইন্ডোজের সাথে বিল্ট-ইন পাওয়ার প্ল্যান সেটিংসও থাকে । তাই চিন্তার কিছু নাই । নানারকম অপশন; যেমন- ডিসপ্লের ব্রাইটনেস কমানো বা বাড়ানো, কখন ডিসপ্লে ডিম বা অনুজ্জ্বল করতে কিংবা বন্ধ করতে চান, ইউএসবি পাওয়ার ও হার্ড-ড্রাইভসমূহ বন্ধ করতে চান, সেগুলো দেওয়া আছে ।


(৬)ব্যাটারি কেস: এই অ্যাপ্লিকেশন ব্যাবহার করে  সম্পূর্ন ব্যাটারির কতটুকু  ক্ষমতা বা চার্জ আছে তা দেখা যায়। শুধু তাই নয় বরং কতোটুকু ব্রাইটনেসে ল্যাপটপের ব্যাটারি কতক্ষণ চলবে সে সম্পর্কে নির্দেশনা রয়েছে সেখানে । ব্যাটারির বর্তমান কন্ডিশন কেমন, তাও জানা যাবে ।হার্ড-ড্রাইভ ও সিপিইউ  অতিরিক্ত গরম হলে , সেটাও অদেখাবে ব্যাটারি কেস অ্যাপ্লিকেশন ।
পরের পোষ্ট এ আরো টিপস দিব !! আমাদের সাথেই থাকুন।

1 comments:

আপনার মন্তব্য দিন
১০ নভেম্বর, ২০১৫ ৭:২৮ PM ×

বচ,অনেক মজা পেলাম ।লেখাটা খুব সুন্দর হয়েছে । তবে এরকম আরো একটি লেখা পড়েছিলাম এখানে> http://muktomoncho.com/archives/2678

উত্তর দিন
avatar
admin

প্রিয় পাঠক, পোস্টটি পড়ার পর আপনার ভালো লাগা, মন্দ লাগা, জিজ্ঞাসা কিংবা পরামর্শ প্রদানের জন্য দয়া করে গঠনমূলক মন্তব্য প্রদান করুন। যা আমাদের ব্লগিং চালিয়ে যেতে অনেক উৎসাহ অনুপ্রেরণা জাগাবে। আর প্রাসঙ্গিক যেকোন প্রশ্নের সমাধান পেতে মেইল করুন contact@projukte.com ঠিকানায় অথবা অধিক জরুরী প্রয়োজনে কল করুন ০১৭৫৪৭২০২৫৫ নম্বরে। আপনার একটি মন্তব্যই আমাদের নিকট অনেক মূল্যবান। সাথেই থাকুন প্রযুক্তি ডট কম বাংলা ব্লগের সাথে।
ধন্যবাদান্তে,
প্রযুক্তি ডট কম

আপনার মূল্যবান মন্তব্য প্রদানের জন্য ধন্যবাদ